মঙ্গলবার, ১১ অগাস্ট ২০২০ | রাত ৩:১১

নরসিংদীর ঘোড়াশাল রেলসেতু এখন মরণ ফাঁদ, নাটের পরিবর্তে কাঠ

J I
  • Update Time : সোমবার ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ২৩৫৮ Time View

সাব্বির হোসেন, পলাশ প্রতিনিধি : নরসিংদীর পলাশ উপজেলার শীতলক্ষ্যা নদীর উপর নির্মিত ঘোড়াশাল রেলসেতুটি বৃটিশ আমলে তৈরি। এ সেতু দিয়ে প্রতিদিন ২১ টি ট্রেন মারাত্মক ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে। চট্টগ্রাম, সিলেট ও ঢাকার সাথে সংযোগ রক্ষাকারী এ সেতু এখন মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। যেকোন সময়ে ট্রেন দুর্ঘটনা পরে প্রাণ যেতে পারে হাজারো যাত্রীর। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রেলসেতুর অধিকাংশ পুরনো স্লিপার গুলোতে দেখা দিয়েছে ফাটল। রেলপথ আটকানোর জন্য যে লোহার নাট গুলো রয়েছে সেগুলো থেকে অনেকগুলো লোহার নাট চুরি এবং নষ্ট হওয়ার এর পরির্বর্তে কাটের গোজ দিয়ে আটকানো হয়েছে। সেই কাটের গোজ গুলোও নষ্ট হয়ে এখন নড়বড়ে অবস্থা। এমনকি কোথাও নাট পর্যন্ত নেই। এতে সেতুটি ঝুঁকিতে থাকলেও রেলওয়ে কর্মীদের যেন এসব নজরে পড়ছেনা না।

এমন অবস্থায় স্থানীয় বাসিন্দা ও রেলওয়ে যাত্রীদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়েছে। পলাশের ট্রেন যাত্রী রিয়াদুল হক ভূঁইয়া জানান, প্রতিদিন ঘোড়াশাল রেল সেতুর এমন ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থার মধ্যদিয়েই ট্রেন চড়ে ঢাকায় যেতে হচ্ছে। এখানে যেকোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। সেতুর ঝুকিপূর্ণ অবস্থার জন্য প্রায় সময়ই ট্রেন যাত্রীদের মধ্যে আতংক বিরাজ করে। তাই দুর্ঘটনা ঘটার আগেই সেতুর উপর রেলপথ আটকানোর নতুন স্লিপার ও লোহার নাট লাগানোর জন্য রেলওয়ের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানাচ্ছি।

এ বিষয়ে ঘোড়াশাল রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার ইসমাইল মিয়া বলেন, এ সেতুতে নাট নেই এবং এটি ঝুঁকির মধ্যে আছে এ ধরনের কিছু আমার জানা নেই।

Please Share This Post in Your Social Media


More News Of This Category