শনিবার, ০৪ Jul ২০২০ | সন্ধ্যা ৬:৫৫

পায়ু পথে প্লাষ্টিকের বোতল ঢুকিয়ে রিকশা চালককে হত্যার অভিযোগ

প্রকাশক
  • Update Time : মঙ্গলবার ৩০ জুন, ২০২০
  • ৩৫ Time View

লোকমান হোসেন পনির, কালীগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধি : কালীগঞ্জে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে আব্দুল কুদ্দুস নামে এক রিকশা চালকের পায়ু পথে পানীয় জাতীয় বোতল ঢুকিয়ে দেয় কয়েকজন দুর্বৃত্তরা। পরে শারীরিক অসুস্থ অবস্থায় বাড়ি ফিরে আব্দুল কুদ্দুস তার পরিবারের লোকজনকে বলে তাকে হাসপাতালে নেয়ার জন্য। গত শনিবার রাত সাড়ে এগোরটার দিকে কালীগঞ্জ পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ড ঘোনাপাড়া গ্রামে এমন ঘটনাটি ঘটে। অপারেশনের পর রোববার বিকেলে ওই রিকশা চালক মারা যান। এলাকার কয়েকজন দুস্কৃতিকারী হত্যার উদ্দেশ্যে পায়ুপথে বোতল ঢুকিয়েছে বলে নিহতের পরিবারের অভিযোগ। গতকাল সোমবার নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের পর তার বাড়িতে নিয়ে আসলে পরিবারের মাঝে শোকে ছায়া বইতে থাকে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, রাতে রিকশাচালকের পরিবার অ্যাম্বুলেন্সযোগে তাকে উত্তরা দক্ষিণখান হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত সাড়ে তিনটার দিকে তার অপারেশন করে পায়ুপথ থেকে প্লাষ্টিকের বোতল বের করা হয়। অপারেশনের পর রোববার বিকেলে হাসপাতাল থেকে বাড়ি আসার পথে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে পুনরায় তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়। তখন হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। নিহত রিকশাচালক কালীগঞ্জ পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ড ঘোনাপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল জব্বারের ছেলে।

রহস্যজনক কারণে পরিবারের লোকজন পুলিশ প্রশাসনকে না জানিয়ে তড়িঘড়ি করে রোববার এশার বাদ ওই রিকশা চালকের জানাজা দেয়ার চেষ্টা করেন। তার জানাযা দেয়ার আগমুর্হুতে স্থানীয় সাংবাদিকরা বিষয়টি কালীগঞ্জ থানার ওসিকে অবগত করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের পরিবারের সাথে কথা বলেন। পরে তার লাশ উদ্ধার করে রোববার রাতে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

নিহতের ছেলে মো. মোক্তার হোসেন বলেন, কে বা কারা আমার বাবার পায়ু পথে প্লাষ্টিকের বোতল ঢুকিয়েছে, বাবা এই ব্যাপারে আমাদের কিছু বলে যায়নি। যারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে আমি তাদের বিচার চাই। রিকশা চালকের পায়ু পথে প্লাষ্টিকের বোতল ঢুকানোর সত্যতা স্বীকার করে কালীগঞ্জ থানার ওসি একেএম মিজানুল হক বলেন, এটা রহস্যজনক মৃত্যু। মৃত্যুর অন্তরালে প্রকৃত ঘটনাটি কী ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন এলে বলা যাবে। জিডি মুলে লাশের ময়নাতদন্ত করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


More News Of This Category